জাপান সব সময়ই আমার হৃদয়ের কাছাকাছি: প্রধানমন্ত্রী

0
2

বাংলাদেশকে জাপানের মতো উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‘উন্নয়নে জাপান-বাংলাদেশের বন্ধুত্ব’ শিরোনামে জাপানের শীর্ষ গণমাধ্যম ‘দ্য জাপান টাইমসে’ প্রকাশিত এক নিবন্ধে এ ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন তিনি।

শেখ হাসিনা বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের ভূমিকা তুলে ধরেন। উদাহরণ হিসেবে জাপানের তৈরি কর্ণফুলি ফার্টিলাইজার কোম্পানি, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওসহ নানা স্থাপনার কথা তুলে ধরেন। যমুনা সেতু নির্মাণে জাপানের ভূমিকা তুলে ধরার পাশাপাশি তিনি পদ্মা সেতু ও রূপসা সেতু নির্মাণেও জাপানের অবদানের কথা তুলে ধরেন। বর্তমানে ২৮০টি জাপানিজ কোম্পানি বাংলাদেশে ব্যবসা করছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

জাপানকে বিশ্বস্ত বন্ধু ও উন্নয়নের অংশীদার চিহ্নিত করে মুক্তিযুদ্ধে জাপান কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বীকৃতির কথা স্মরণ করেন তিনি।

জাপানের সঙ্গে বন্ধুত্বের ‘মনোমালিন্য’ হিসেবে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলাকে উল্লেখ করেন, যেখানে ৭ জন জাপানিজ নিহত হয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী জঙ্গি মোকাবেলায় জাপানকে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ানোর জন্য কৃতজ্ঞতা জানান।

জাপানের প্রতি ব্যক্তিগত ভালো লাগার কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা লিখেছেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আমার জাপানের প্রতি এক ধরনের মোহ কাজ করতো। আমি জাপানী চিত্রকলা, ক্যালেন্ডার, ডাকটিকিট, পুতুল প্রভৃতি সংগ্রহ করতাম। জাপান সব সময়ই আমার হৃদয়ের কাছাকাছি রয়েছে।’

উল্লেখ্য, ২৮-৩০মে পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় সফরের উদ্দেশ্যে আজ সকালে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here