চরফ্যাশন টু ঢাকা লঞ্চে ভাড়া ১০টাকা,

0
223

কামরুল সিকদার, ভোলার আলো.কম,

ভোলা ৪(চরফ্যাশন-মনপুরা) বেতুয়া ঘাট থেকে ঢাকা সদর ঘাট পর্যন্ত সাড়ে ৩শ’কিঃমিটার নৌ পথের ভাড়া মাত্র ১০টাকা নেয়া হচ্ছে। এতে চরফ্যাশনের যাত্রীরা বাজার বা ঘুরার জন্য রাজধানীতে যাতায়াত করছে। যাত্রীদের সংখ্যাও বেড়ে গেছে। এমকি বিভিন্ন দিবস উপলক্ষে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ বিশেষ ছাড় বা সুবিধাও দিচ্ছে। ১লা বৈশাখে ডেকের ভাড়া ১০টা সাথে যাত্রীদেন জন্য ভাত, ডিম ও ডাল ফ্রি ব্যবস্থা করছে লঞ্চকর্তৃপক্ষ। যে ঘাটে বিএনপির এমপি লঞ্চ দিতে পারেনি। তৎকালিন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদ জিয়ার চরফ্যাশন টিবি স্কুল মাঠে সমাবেশ করা কালিন ওই অঞ্চলের ব্যবসায়ীরা লঞ্চের দাবী জানালে আশ্বাস দিয়েও লঞ্চ দিতে পারেনি। ওই ঘাটে আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি হয়ে লঞ্চের ব্যবস্থা করছে। স্থানীয় আওয়ামীলীগ সভাপতি নুরে আলম বলেন, আমাদের মন্ত্রী শুধূ পুল কালভাট ব্রীজ রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করেনি জনকল্যাণে যাত্রীদের সেবা দিতে রাজধানীতে পৌছতে লঞ্চ দিয়ে এ সুযোগ করে দিয়েছে। একাধিক লঞ্চের প্রতিযোগিতা এখন যাত্রীরা এই সুবিধা পাচ্ছে।
এম.ভি ফারহান-৫ লঞ্চের ম্যানেজার জাহিদ বলেন,একেই ঘাটে(বেতুয়া) থেকে ৩টি লঞ্চ ছেড়ে যাচ্ছে ঢাকায়। আমরা ডেকের ভাড়া নিতাম ৩০০ টাকা। কেবিন ডাবল ২০০০ হাজার, সিংগেল ১০০০ হাজার টাকা। এ ঘাটে এম.ভি তাসরিফ ৩/৪ এসে ভাড়া বেতুয়া থেকে ডেকে ডেকে নিচ্ছে ১০০ টাকা, ঢাকা ঘাট থেকে নিচ্ছে ১৫০ টাকা আমরা ও নিতে বাধ্য হচ্ছি। এখন আবার এমভি.কর্ণফুলি ১২/১৩ এসে ভাড়া নিচ্ছে ১০ টাকা, আমরাও ১০ টাকা ভাড়া নিচ্ছি। তারা যদি ফ্রি নেয় আমরা ফ্রি নিবো। যাত্রী আব্বাস বলেন, ভাই ঢাকা যাচ্ছি দুইটি সাট কিনবো। ওইদিনেই আবার লঞ্চে চড়বো। আসা যাওয়া মাত্র ২০ টাকা লাগবে। এই সুযোগ যদি আমরা কাজে লাগতে না পারি তাহলে আমাদের কপালেই খারাপ। অন্য যাত্রী বলেন, ১০ টাকা বিনিময়ে রাজধানী ঘুরে আসি।

(হামিদুর রহমান আজাদ/১৭এপ্রিল-২০১৮ইং)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here