এবার বগুড়ায় ট্রাকচাপায় হাত হারাল শিশু

0
22

ডেস্ক: ভোলার আলো.কম,

ঢাকায় দুই বাসের চাপায় হাত হারিয়ে যুবকের মৃত্যু একং এক তরুণীর পা হারানো নিয়ে আলোচনার মধ্যেই এবার বগুড়ায় ট্রাকের নিচে পড়ে হাত বিচ্ছিন্ন হয়েছে এক শিশুর। সে স্থানীয় একটি স্কুলে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী।

রবিবার জেলার শেরপুর উপজেলার শেরুয়া এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহত শিশুটির নাম সুমি বেগম। তার বয়স আট বছর। সে স্থানীয় ব্র্যক স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়ে সে।

সুমি শেরপুরের শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ফুলতলা দক্ষিণপাড়ার দোকান কর্মচারী দুলাল মিয়া এবং গৃহকর্মী মরিয়ম বেগমের মেয়ে।

শিশুটির মা সাংবাদিকদের জানান, দুপুরে তার মেয়ের সঙ্গে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। শেরুয়া এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় হোঁচট খেয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। এ সময় একটি ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে সুমির ডান হাত। সুমির তার ডান হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি অন্য হাতেরও দুটি আঙ্গুলআঙুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

 

দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা শিশুটিকে স্থানীয় দুবলাগাড়ী হাসপাতাল নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে বগুড়ার সবচেয়ে বড় হাসপাতালটিতে পাঠানো হয়।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক নির্মলেন্দু চৌধুরী বলেন, শিশুটি মাথাতেও আঘাত পেয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। আগামী ২৪ ঘণ্টা না গেলে শিশুটির অপারেশনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া কঠিন বলেও জানান এই চিকিৎসক। জানান, মেয়েটির মাথার আঘাত গুরুতর।

গত ৩ এপ্রিল রাজধানীতে দুই বাসের সংঘর্ষে ডান হারানোর তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেন মারা যান কিছুদিন পর।

এরপর গোপালগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় হাত বিচ্চিন্ন হয়েছে পরিবহন শ্রমিক হ্রদয়ের। আর শুক্রবার রাতে রাজধানীর বনানীতে বিআরটিসির দ্বিতল বাসের নিচে পড়ে ডান পা হারিয়েছেন রোজিনা নামের এক তরুণী।

(হামিদুর রহমান আজাদ,২২এপ্রিল-২০১৮ইং)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here